কুরুলুস উসমান ভলিউম ১১২ বাংলা সাবটাইটেল

সিজন ০৪

এপিসোড ১৪

ভলিউম ১১২

এপিসোডটি দেখতে নীচে যান

আমাদের ওয়েবসাইটে প্রতি বৃহস্পতিবার সকাল ৬—১০ টার মধ্যে কুরুলুস উসমানের নতুন পর্ব বাংলা সাবটাইটেল সহ দেখতে পাবেন। ফেইসবুক লিংক কিংবা টেলিগ্রাম লিংকের অপেক্ষায় না থেকে, আমাদের সাইটটি সেভ করে রাখুন এবং সরাসরি নতুন পর্ব এখানে দেখুন।

یٰۤاَیُّهَا الَّذِیۡنَ اٰمَنُوۡا مَا لَکُمۡ اِذَا قِیۡلَ لَکُمُ انۡفِرُوۡا فِیۡ سَبِیۡلِ اللّٰهِ اثَّاقَلۡتُمۡ اِلَی الۡاَرۡضِ ؕ اَرَضِیۡتُمۡ بِالۡحَیٰوۃِ الدُّنۡیَا مِنَ
الۡاٰخِرَۃِ ۚ فَمَا مَتَاعُ الۡحَیٰوۃِ الدُّنۡیَا فِی الۡاٰخِرَۃِ اِلَّا قَلِیۡلٌ•

অর্থঃ হে ঈমানদারগণ, তোমাদের কী হল, যখন তোমাদের বলা হয়, আল্লাহর রাস্তায় (যুদ্ধে) বের হও, তখন তোমরা যমীনের প্রতি প্রবলভাবে ঝুঁকে পড়? তবে কি তোমরা আখিরাতের পরিবর্তে দুনিয়ার জীবনে সন্তুষ্ট হলে? অথচ দুনিয়ার জীবনের ভোগ-সামগ্রী আখিরাতের তুলনায় একেবারেই নগণ্য। সূরা আত-তাওবাহ (৯ঃ৩৮)

• وَلَا تَهِنُوا۟ وَلَا تَحْزَنُوا۟ وَأَنتُمُ ٱلْأَعْلَوْنَ إِن كُنتُم مُّؤْمِنِينَ

অর্থঃ তোমরা দুর্বল হয়ো না এবং দুঃখিত হয়ো না, আর তোমরাই বিজয়ী যদি মুমিন হয়ে থাক।

اِاِلَّا تَنۡفِرُوۡا یُعَذِّبۡکُمۡ عَذَابًا اَلِیۡمًا ۬ۙ وَّ یَسۡتَبۡدِلۡ قَوۡمًا غَیۡرَکُمۡ وَ لَا تَضُرُّوۡهُ شَیۡئًا ؕ وَ اللّٰهُ عَلٰی کُلِّ شَیۡءٍ قَدِیۡرٌ •

অর্থঃ যদি তোমরা (যুদ্ধে) বের না হও, তিনি তোমাদের বেদনাদায়ক আযাব দেবেন এবং তোমাদের পরিবর্তে অন্য এক কওমকে আনয়ন করবেন, আর তোমরা তাঁর কিছুমাত্র ক্ষতি করতে পারবে না। আর আল্লাহ সব কিছুর উপর ক্ষমতাবান। সূরা আত-তাওবাহ (৯ঃ৩৯)

~শেখ এদেবালি

আবূ হুরাইরাহ (রা.) হতে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেনঃ “মু’মিনের উদাহরণ হল ক্ষেতের শস্যের মতো যাকে বাতাস সর্বদা আন্দোলিত করতে থাকে। মু’মিন সদাসর্বদাই বিপদগ্রস্ত হতে থাকবে। মুনাফিক হল বট গাছের মতো যা বাতাসে না হেললেও (ঝড়ে) সমূলে উৎপাটিত হয়।”

আবূ হুরাইরাহ (রা.) হতে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ সা. বলেছেন,
“মুনাফিক (কপট)দের উপর ফজর ও এশার নামায অপেক্ষা অধিক ভারী নামায আর নেই। যদি তারা এর ফযীলত ও গুরুত্ব জানত, তাহলে হামাগুড়ি দিয়ে বা পাছার ভরে অবশ্যই (মসজিদে) উপস্থিত হতো।”

~ বুখারী ও মুসলিম

সংশ্লিষ্টতাঃ মুনাফিক সম্পর্কে শায়েখ এদেব আলীর আলোচনা

কুরুলুস উসমান ঐতিহাসিক ফিকশন টিভি সিরিয়ালটি অটোমান সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা উসমান গাজীর (প্রথম উসমান) জীবনকাহিনীর উপর ভিত্তি করে নির্মাণ করা হয়েছে। এটি উসমান গাজীর পিতা, আরতুগ্রুল গাজীর জীবনীর উপর মেহমেদ বোজদাগ নির্মিত মেতিন গুনেয় পরিচালিত বহুল আলোচিত, জনপ্রিয় ঐতিহাসিক ফিকশন টিভি সিরিজ দিরিলিস আরতুগ্রুল এর সিকুয়েল।

আমাদের ওয়েবসাইটে প্রতি বৃহস্পতিবার কুরুলুস উসমান বাংলা সাবটাইটেল সহ দেখতে পাবেন। উসমান বে’র ভালোবাসা, সংগ্রাম, রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার গল্প, শত্রু ও বিশ্বাসঘাতক মোকাবিলা এই সিরিজে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। বুরাক অজচিভিট উসমান বে’র চরিত্রে, ওজগে তোরার উসমান বে’র স্ত্রী বালা হাতুনের চরিত্রে অভিনয় করেন। এছাড়াও তামের ইগিত, কায়ী বে আরতুগ্রুল গাজীর চরিত্রে জীবন দান করেন।

আরতুগ্রুলের পুত্র উসমান

সবাই তাকে ‘কারা উসমান’ বলে ডাকতো। “কারা” শব্দটির অর্থ কালো। কারা উসমান দ্বারা সাহসী উসমান বুঝানো হয়েছে। ছুটন্ত ঘােড়ার উপর আরোহন করে তীর ছােড়া তার প্রিয় খেলা ছিলো। তার আরেকটি পছন্দনীয় খেলা, মঙ্গোলিয়ান কুস্তি। ঘােড়াটা দুরন্ত বেগে ছুটে চলেছে। দুই পা দিয়ে শক্ত করে ঘােড়াটার পিঠে আরোহন করে আছেন, এক সুদর্শন বলিষ্ঠ তরুণ। তরুণের হাতে ছােটো একটা বাঁকানাে ধনুক। দু’পায়ের গােড়ালি দিয়ে নিয়ন্ত্রণ করছে ঘােড়ার গতিপথ। ছেলেটির চোখ এই মুহূর্তে সামনের দিকে না পেছনে। দূরের একটা গাছে দারুণ একটা বেদানা দেখেছে সে। এই বেদানাটা তার খাওয়া চাই। অবশ্যই গাছে না ওঠেই। ওঘুজের হাতে তীর থাকতে ওঘুজ গাছে উঠতে যাবে কেন? তরুণ ঠিক করলো, ঘােড়াটাকে সােজা গাছের দিকে না ছুটিয়ে বিপরীত দিকে ছুটাবে।

সােজা ছুটিয়ে তীর দিয়ে বাচ্চারাও তো লক্ষ্য ভেদ করতে পারে। তাতে আর বাহাদুরির কী আছে? ঘােড়ার পেটে চাপ দিয়ে তরুণ ঘােড়ার বেগ আরও বাড়িয়ে দিলাে। প্রায় দুইশাে কদম এসে ঘােড়াটা যখন শূণ্যে লাফিয়ে উঠলো। ঠিক তখন সে ধনুকের ফলা থেকে তীর নিক্ষেপ করলো। বেদানাটা ভাল থেকে আলাদা হয়ে নিচে পড়ে গেলো। গাছের নিচে গিয়ে বেদানাটা তুলে নিল তরুণ। পাগড়ি খুলে ফেলে নিশ্চিত্তে খেতে শুরু করল সে। তার কুচকুচে কালাে চুল বলমল করে উড়ছিল আনাতােলিয়ার পাহাড় থেকে আসা বাতাসে। মোঙ্গল খান হালাকুর সৈন্যরা বাগদাদের দেয়াল ভেঙে শহরে ডুকে পড়েছিলো। সেই বছরের শীতেই আনাতােলিয়ার উত্তর-পশ্চিমে সােগুত নামের ছােটো এক শহরে আরতুগ্রুল বে’র ঘরে এক ফুটফুটে বাচ্চার জন্ম হয়। তার নাম রাখা হয় উসমান, অর্থ হাড় গুড়িয়ে দেওয়া পালােয়ান।

কুলুজাহিসারে আক্রমণ করে ব্যর্থ হয়ে দুঃখ ভারাক্রান্ত মনে উসমান প্রার্থনা শেষে ঘুমিয়ে পড়েন। স্বপ্নে দেখেন—শায়খ এদেব আলীর বুক থেকে একটা চাঁদ উঠে তাঁর বুকে এসে ঠাই নিলো। তারপর তার নাভি থেকে গজিয়ে উঠলো এক বিশাল বটবৃক্ষ। বৃক্ষটি সুন্দর সবুজ ডালপালায় ভরে উঠলো। সময়ের সাথে সাথে বৃক্ষটি বড়াে হতে হতে পেরিয়ে যেতে লাগল চারটি পর্বতমালা। বলকান, আলবুর্জ, ককেশাস আর অ্যাটলাস। গাছের শেকড় থেকে বইতে লাগল চার চারটি নদী। দানিয়ুব, ইউফ্রেতিস, তাইগ্রিস আর নীল। কিন্তু হঠাৎ গাছের পাতাগুলাে রূপ নিলাে তরবারীর ফলায়। তারপর বাতাস বইতে শুরু করলো। কনস্ট্যান্টিনােপলের দিকে, বসন্তের বাতাস। সে বাতাসে একেকটা পাতা একেকটা তরবারী হয়ে উড়ে যেতে লাগল কনস্ট্যান্টিনােপলে। দুই মহাদেশ আর দুই সমুদ্রের শহরে। তারপর কনস্ট্যান্টিনােপল পরিণত হলাে একটা আংটির কেন্দ্রে। সেই আংটি উসমান যখন হাতে নিচ্ছিলেন, পরক্ষণেই তার ঘুম ভেঙে গেল।

উসমান অনলাইন ওয়েবসাইটে প্রতি বৃহস্পতিবার কুরুলুস উসমান বাংলা সাবটাইটেল সহ দেখতে পাবেন। উসমান বে’র ভালোবাসা, সংগ্রাম, রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার গল্প, শত্রু ও বিশ্বাসঘাতক মোকাবিলা এই সিরিজে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। বুরাক অজচিভিট উসমান বে’র চরিত্রে, ওজগে তোরার উসমান বে’র স্ত্রী বালা হাতুনের চরিত্রে অভিনয় করেন। এছাড়াও তামের ইগিত, কায়ী বে আরতুগ্রুল গাজীর চরিত্রে জীবন দান করেন।

সার্ভার ০১ (প্লেয়ার-০১)




সার্ভার ০১ (প্লেয়ার-০২)





এপিসোডটি সার্ভার ০১ এর প্লেয়ার ০১ থেকে সরাসরি দেখুন যেকোনো নেটওয়ার্কে বা সার্ভার ০৩ এর নীচে ডাউনলোড বাটন থেকে ডাউনলোড করুন

কুরুলুস উসমান সকল এপিসোড লিংক

সার্ভার ০২

উসমান গাজী বা প্রথম উসমান – আনাতলিয়ার বাইজেন্টাইন সীমান্তবর্তী এলাকার তুর্কমেন যাযাবর কায়ী গোত্রের প্রধান আরতুগ্রুল গাজীর ছেলে। কোচদাগ যুদ্ধে মোঙ্গলদের কাছে সেলজুক সাম্রাজ্য পরাজিত হলে, আনাতলিয়ার তুর্কমেনদের শক্তিশালী এই সাম্রাজ্য মোঙ্গলদের করদরাজ্যে পরিণত হয়।আরতুগ্রুল গাজী ছিলেন এই সাম্রাজ্যের অনুগত একজন তুর্কমেন বে। মোঙ্গলদের এই অভ্যুত্থানে তিনিও অন্যান্য তুর্কমেন বে’দের মতো নিজের বেইলিকের স্বাধীনতার বিনিময়ে কর পরিশোধ করতেন। উসমান সফলতা

পেতে থাকেন পক্ষান্তরে মোঙ্গলদের শাসনাধীনে থাকা সেলজুকরা শক্তি হারাতে থাকে। এতে করে সেলজুকদের উপরও মানুষের আস্থা কমতে থাকে। নেতৃত্বের গুণাবলি, যোগ্যতা সবই উসমানের মাঝে ছিলো। তাই কায়ী বসতির আশপাশের বসতিগুলো দ্রুত প্রভাবিত হয়ে উসমানের নেতৃত্ব মেনে নেয়। সর্বত্র উসমানের সুনাম ছড়িয়ে পড়ে। সেলজুকদের উপর মোঙ্গলদের প্রভাবে ইতিমধ্যে বিরক্ত জনগণ ধীরে ধীরে উসমানের পতাকাতলে একতাবদ্ধ হতে সীমান্তবর্তী এলাকার দিকে ছুটে যায়।

সার্ভার ০৩










ভিডিও দেখতে পারছেন না? ফেইসবুক ব্রাউজার থেকে লিংকে প্রবেশ করলে ভিডিও দেখতে সমস্যা হবে। তাই ক্রোম, ইউসি ব্রাউজার, ফায়ারফক্স কিংবা অন্য যেকোনো ব্রাউজারে লিংকটি অপেন করে ভিডিও প্লে করুন। তারপরও যদি কাজ না করে তাহলে তাহলে আপনার ওয়েবসাইটটি রিফ্রেশ করুন এবং কয়েক মিনিট পর আবার ট্রাই করুন। যদি ডিভাইসে এড ব্লকার অন করা থাকে, অফ করে দিন নাহয় ভিডিও দেখতে পাবেন না। ভিডিওর প্লে বাটন দেখতে না পেলে, ভিপিএন – ইউএস, জার্মানি, ইউরো ইত্যাদি রিজিয়নে কানেক্ট করে ট্রাই করুন। ভিডিও ডাউনলোড সম্পর্কে জানতে বিস্তারিত দেখুন।

(বিস্তারিত)
যারা দেখতে পারছেন না, তারা উপরের পন্থাগুলো অনুসরণ করলে, আর সমস্যা হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। তবুও শুধুমাত্র বিশেষ প্রয়োজনে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন